১৪ এপ্রিল, ২০২৪
১ বৈশাখ, ১৪৩১

বিমানযাত্রীর ব্যাগে মেশিনের ভেতর মিললো আড়াই কোটি টাকার সোনা

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে শারজাহ থেকে আসা দুই যাত্রীর ব্যাগ তল্লাশি করে ওয়াসার মেশিন ও ব্র্যান্ডিং মেশিনের ভেতর বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে আনা দুই কেজি ৪৪০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। শনিবার (২ মার্চ) সকালে গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই এবং শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের টিম যৌথভাবে এসব স্বর্ণ উদ্ধার করে।

দুই যাত্রী এয়ার অ্যারাবিয়ার এয়ারলাইনসের জিনাইন-৫২৬ ফ্লাইটে শারজাহ থেকে চট্টগ্রামে আসেন। উদ্ধার হওয়া স্বর্ণের বাজারমূল্য দুই কোটি ২৭ লাখ ৩৪ হাজার ৭৬০ টাকা।

এ ঘটনায় শারজাহ থেকে আসা যাত্রী মো. শফিকুল ইসলাম ও মো. মোরশেদ নামে দুই যাত্রীকে পৃথকভাবে আটক করা হয়। এর মধ্যে শফিকুল ইসলাম চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার সিরাজুল ইসলামের ছেলে এবং মোরশেদ হাটহাজারী উপজেলার মো. সুলাইমানের ছেলে। কাস্টমসের সহকারী কমিশনার মহিউদ্দিন পাটোয়ারী এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
কাস্টমস সূত্র জানায়, শারজাহ থেকে আসা যাত্রী শফিকুল ইসলামের গতিবিধি সন্দেহ হলে তার লাগেজ তল্লাশি করা হয়। লাগেজের ভেতর থাকা ওয়াসার মেশিনের ওজন অস্বাভাবিক মনে হলে সেটি খোলা হয়। সেটির ভেতর নানা কৌশলে লুকিয়ে রাখা এক কেজি ২৪০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। যার বাজারমূল্য এক কোটি সাত লাখ ৩৪ হাজার ৭৬০ টাকা।

একইভাবে পৃথক অভিযানে একই ফ্লাইটে আসা যাত্রী মো. মোরশেদের ব্যাগ তল্লাশি করা হয়। তার ব্যাগের ভেতর থাকা ব্র্যান্ডিং মেশিনের ভেতর বিশেষ কায়দায় লুকানো অবস্থায় এক কেজি ২০০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। যার বাজারমূল্য এক কোটি ২০ লাখ টাকা।

আটক দুই যাত্রীর বিরুদ্ধে নগরীর পতেঙ্গা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর।
Scroll to Top