১৩ এপ্রিল, ২০২৪
৩০ চৈত্র, ১৪৩০

দেশকে উন্নত দেশের কাতারে পৌছে দিতে নৌকার বিকল্প নাই-হুইপ ইকবাল

স্টাফ রিপোর্টার : জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেন, নৌকা মার্কায় ভোট দিয়েছেন বলেই বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ শান্তিতে আছে। অসহায় মানুষেরা পাচ্ছে সরকারের বিভিন্ন ধরনের ভাতা। ঘরে ঘরে বিদ্যুতের আলোয় আজ আলোকিত বাংলাদেশ।
তিনি বলেন, নৌকা ছাড়া বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। বিএনপি-জামায়াতের তলাবিহীন ঝুড়ির বাংলাদেশকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নশীল দেশে পরিনত করা হয়েছে। দ্বাদশ নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত হলে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলা হবে। ‘প্রতিটি গ্রামই এক একটি নগর হিসেবে গড়ে উঠবে। গ্রামের মানুষও উন্নত জীবন পাবে সেটা শেখ হাসিনা সরকার নিশ্চিত করবে। সমগ্র বাংলাদেশই হবে উন্নত সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ।’

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণ ঘটেছে। সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনি বিস্তৃত করতে বয়স্ক, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্ত ও দুঃস্থ মহিলা ভাতা, অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা, মাতৃকালীন ভাতাসহ ভাতার হার ও আওতা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি করা হয়েছে। বিএনপি-জামায়াতের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করেই বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। ষড়নযন্ত্র করে শেখ হাসিনার উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করা যাবে না। জনগন বিএনপি-জামায়াতের নৈরাজ্য ও সন্ত্রাসকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

বৃহস্পতিবার (৪ জানুয়ারী) দিনাজপুর সদর উপজেলার ১০ নং কমলপুর ইউনিয়নের কমলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে কমলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আয়োজনে নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি এসব কথা বলেন।

হুইপ বলেন, বাংলাদেশে কেউ ভূমিহীন, কেউ গৃহহীন থাকবে না। আওয়াম লীগ ক্ষমতায় এলেই দেশের উন্নয়ন হয়। বিনামূল্যে বই ও প্রাথমিক থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত উপবৃত্তির ব্যবস্থা করে দিয়েছে শেখ হাসিনা সরকার। মানুষের ভাগ্যপরিবর্তন করে দিয়েছে এই নৌকা। নৌকায় ভোট দিলে বিএনপির তলাবিহীনঝুড়ির দেশ এখন উন্নত দেশের কাতারে পৌছে যাবে।

কমলপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মোঃ আহাসান হাবিব সরকারের সঞ্চালনে জনসভায় বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ ইমদাদ সরকার, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, বীরমুক্তিযোদ্ধা লোকমান হাকিম, দিনাজপুর জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক উত্তম কুমার রায়, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক রতন সিং, বাংলাদেশ যুব ঐক্য পরিষদের জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক জয়ন্ত মিশ্র, বিশিষ্ঠ শিল্পপতি ও সমাজসেবক আহসান হাবিব, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল আলম প্রমুখ।

Scroll to Top