১৪ এপ্রিল, ২০২৪
১ বৈশাখ, ১৪৩১

শীতে লেপ-কম্বল সরিয়ে কিনে নিন এই ইলেকট্রিক ব্ল্যাঙ্কেট

মিরর ডেস্ক : জেকে পড়ছে শীত। এখন কম্বল বা লেপ মাথা অবধি ঢাকা দিয়েও শীতে কাঁপছেন অনেকে। তবে ঘরে হিটার লাগানোর মতো ঠান্ডা আর কই বা পড়ে। তাই টাকা খরচ করে হিটার না কিনে হিটিং কম্বল কিনে নিতে পারেন।

বৈদ্যুতিক কম্বল বা ইলেকট্রিক ব্ল্যাঙ্কেট হলো একপ্রকার গরম কম্বল; যা গায়ে দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শীত উধাও। এই কম্বলটি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে, যাতে এটি আপনাকে খুব গরম বা খুব ঠান্ডাও করবে না। এই কম্বল বিছানার চাদর গরম করার কাজ করে। এটি বিছানায় ছড়িয়ে দেওয়ার পরে, এটি বিছানা গরম করে দেয়। ফলে বুঝতেই পারছেন এটি ব্যবহার করা কতটা সহজ।

বৈদ্যুতিক কম্বল ব্যবহারের আগে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় মাথায় রাখা জরুরি। জেনে নিন-

১। শিশু এবং বয়স্কদের বৈদ্যুতিক কম্বলে একা রাখবেন না। এতে বেশি গরম হয়ে গিয়ে বিপদ হতে পারে।

২। বৈদ্যুতিক কম্বল থেকে পোষ্যদের দূরে রাখুন। ওদের কোনোভাবেই এত ভেতরে ঢুকতে দেবেন না। এছাড়াও পোষ্যের নখ লেগে ছিঁড়ে যেতে পারে।

৩।বৈদ্যুতিক কম্বল ভাঁজ করবেন না এবং এটি পাওয়ার সকেটের সঙ্গে কানেক্ট করা থাকে। ফলে ভাঁজ করে দিলে কম্বলের ক্ষতি হতে পারে।

৪। ফুটো বা কোনো ধরনের সেলাই করবেন না। ফুটো হয়ে গেলে এই কম্বল কোনওভাবেই গরম হবে না।

৫। বৈদ্যুতিক কম্বল ধোয়া যায় না। অতএব, এটি ধোয়ার চেষ্টা করবেন না।

৬। ভিজে গেলে এটি পাওয়ার সকেটে প্লাগ করবেন না। এতে কম্বলের ক্ষতি হতে পারে।

বৈদ্যুতিক কম্বলের দাম কত?

এর দাম ২ হাজার থেকে শুরু। দারাজ, ফ্লিপকার্ট, অ্যামাজনসহ বিভিন্ন অনলাইনে নানা কোম্পানির বৈদ্যুতিক কম্বল পেয়ে যাবেন। এটি বিভিন্ন রঙে পাওয়া যায়।

Scroll to Top