১৮ এপ্রিল, ২০২৪
৫ বৈশাখ, ১৪৩১

স্কুলছাত্র হত্যা মামলায় মা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলায় তৎকালীন এসএসসি পরীক্ষার্থী আবু হোসেন (১৪) হত্যা মামলায় মা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ সময় প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ‍দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন জয়পুরহাটের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-২-এর বিচারক নুরুল ইসলাম। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাড জিতেন্দ্রনাথ মণ্ডল।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- পাঁচবিবি উপজেলার কোকতাঁরা গ্রামের মৃত রুস্তম আলীর স্ত্রী সহিদা বেগম, তার ছেলে রব্বানী, নায়েব আলীর ছেলে মোজাফফর হোসেন ও দরগাপাড়া গ্রামের আবু রায়হানের স্ত্রী আমিনা, তার ছেলে রাফিউল। এর মধ্যে আমিনা পলাতক রয়েছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ২৫ মার্চ সকাল ৯টায় পাঁচবিবি উপজেলার দরগাপাড়া গ্রামে বাড়ির সামনে গাদা থেকে খড় খোলার সময় আবু তাহেরকে পূর্বশত্রুতার জেরে আসামিরা হামলা করেন। এ সময় আবু তাহেরের ছেলে আবু হোসেন এগিয়ে এলে আসামিরা তাকেও মারধর করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হলে পালিয়ে যান আসামিরা।

পরে স্থানীয়রা আবু হোসেনকে উদ্ধার করে প্রথমে পাঁচবিবি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে পরবর্তীতে তাকে বগুড়ার শজিমেকে ভর্তি করানো হয়। অবস্থার অবনতি হলে আবু হোসেনকে ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা আবু তাহের ওই বছরের ৪ এপ্রিল পাঁচবিবি থানায় ৯ জনের নামে মামলা করেন। শুনানি শেষে পাঁচজনের ফাঁসির রায় দেন বিচারক। একইসঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। পাঁচজনের মধ্যে একজন পলাতক রয়েছেন।

এ বিষয়ে পাবলিক প্রসিকিউটর নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল বলেন, আবু হোসেন হত্যা মামলায় পাঁচজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। এ রায়ে খুশি বাদীপক্ষ।

Scroll to Top