১৮ এপ্রিল, ২০২৪
৫ বৈশাখ, ১৪৩১

বাংলাদেশ থেকে রাজনীতিকে নির্বাসন দেয়া হয়েছে: মঈন খান

ঢাকা : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান অভিযোগ করে বলেছেন, বাংলাদেশ থেকে রাজনীতিকে নির্বাসন দেয়া হয়েছে। এখন চলছে শুধু ক্ষমতা, টাকা, অর্থের রাজনীতি।

তিনি আরও বলেন, বিগত ১৫ বছর ধরে সরকার বারবার একটি চেষ্টা করেছে বিরোধীদলকে চিত্রায়িত করার চেষ্টা করেছে একটি সন্ত্রাসী দল হিসেবে। জঙ্গি সংগঠন বলছে। তাদের এ কথা এবার কোন কাজে দিবে না।

শনিবার (২০ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে চলমান শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে পেশাজীবীদের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মঈন খান বলেন, আজকের এই আন্দোলন কিন্তু বিএনপি বনাম আওয়ামী লীগ নয়। আজকের আন্দোলন নিরস্ত্র জনগণ বনাম রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা কুক্ষিগতকারী দল। ২৮ অক্টোবরে ঘটনা বিশ্ব কিভাবে দেখেছে সেটা দেখতে হবে। তারা কী বলছে। তারা বলছে ২৮ অক্টোবর সরকার ক্রাকডাউন করেছে বিরোধীদলের ওপর। ৭ জানুয়ারি নির্বাচন নিয়ে বিশ্ব বলছে এটা সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ অনেক নাম পরিবর্তন করতে পারলেও নিজেদের নাম পরিবর্তন করতে পারেনি। তাদের আওয়ামী লীগ শব্দটি উর্দু। আওয়ামী মুখে যা বলে তা করে না। যা বলে না তাই করে। মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও বাকশাল কায়েম করছে। তারাই আবার গণতন্ত্রের প্রবক্তা দাবি করে।

বিএমপির এই নেতা বলেন, রাজনীতি এখন ক্ষমতার উৎস, আওয়ামী লীগ এখন ক্ষমতায় আছে, পনের বছর ধরে ক্ষমতায় আছে, আরও পনের বছর ক্ষমতায় থাকতে পারে। কারণ আওয়ামী লীগ বিশ্বাস করে বাংলাদেশটা তাদের পারিবারিক জমিদারি। তারা বলে আজীবন ক্ষমতায় থাকবে। আমরা নির্বাচন ঠেকাতে পারিনি এটা সত্য, তবে এ দেশের ১৮ কোটি জনগণ ও ১২ কোটি ভোটারের মন ঠিকই জয় করতে পেরেছি।

ইউনাইটেড ল’ইয়ার্স ফ্রন্ট। আয়োজিত এ আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, সাংবাদিক নেতা ইলিয়াস খান প্রমুখ।

Scroll to Top