১৫ এপ্রিল, ২০২৪
২ বৈশাখ, ১৪৩১

‘ডামি নির্বাচন’ প্রত্যাখ্যান করেছে জনগণ: রিজভী

ঢাকা : নির্বাচন বর্জনের জন্য জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বলেছেন, ক্ষমতাসীনদের পাতানো নির্বাচনের বিরুদ্ধে জনগণ অভূতপূর্ব রায় দিয়েছে। দুই শতাংশের বেশি ভোটার কেন্দ্রে আসেনি। আমাদের ভোট বর্জন সার্থক হয়েছে। জনগণ সরকারের এ ডামি নির্বাচন বর্জন করেছে।

রবিবার (৭ জানুয়ারি) বিকালে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন বলেন, আজ যে নির্বাচন হচ্ছে সেটি আদ্যোপান্ত একটি ইয়ার্কি-ঠাট্টার নির্বাচন। একতরফা একচেটিয়া নির্বাচনের সেটআপ তারা আগেই করেছে। কিন্তু তাদের ভেতরে উদ্বেগ উঁকি দিচ্ছে।

বিএনপির এ সিনিয়র নেতা বলেন, মানুষ অভূতপূর্বভাবে আমাদের পক্ষে রায় দিয়েছে। ইতিহাস আজ সাক্ষী হয়ে থাকবে। এতকিছুর পরও এক থেকে দেড় শতাংশের বেশি ভোটারদের তারা ভোটকেন্দ্রে নিয়ে যেতে পারেনি।

রিজভী বলেন, একতরফা নির্বাচনের সব বৈশিষ্ট্য ফুটে উঠেছে এ নির্বাচনে। সকাল থেকে কোনো ভোটকেন্দ্রে কেউ নেই। আমরা একটি বিশ্বাসযোগ্য ও প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচনের আহ্বান জানিয়ে আসছিলাম।

বিএনপির এ নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থীরাই নির্বাচন বর্জন করছেন এবং মিডিয়াতে বক্তব্য দিচ্ছেন, নৌকার প্রার্থীরা তাদের ভোটকেন্দ্র থেকে বের করে দিচ্ছেন। কে কে জয়ী হবে তা সরকার আগেই নির্দেশনা দিয়ে দিয়েছে। সরকার নিজেদের মধ্যে ভোট করছে। তবুও, পছন্দের প্রার্থীকে জেতানোর জন্য রাতের বেলায় ব্যালটবক্স ভর্তি করে রেখেছে। আবার কোথাও সাত বছরের শিশুও ভোট দিচ্ছে। এই হচ্ছে আওয়ামী লীগের সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন।

বিএনপি জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত তাঁদের আন্দোলন চলবে। এ সময় বিএনপির এ নেতা শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল সফল করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

Scroll to Top