১৮ এপ্রিল, ২০২৪
৫ বৈশাখ, ১৪৩১

টাকা নিয়েছি প্রমাণ করতে পারলে পদত্যাগ করব : চুন্নু

ঢাকা : নির্বাচন উপলক্ষ্যে ক্ষমতাসীনদের কাছ থেকে জাতীয় পার্টি (জাপা) টাকা নিয়েছে— এমন অভিযোগ তুলেছেন দলটির পরাজিত প্রার্থী ও বিক্ষুব্ধ নেতারা। তাদের এই অভিযোগ অস্বীকার করে জাপা মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু বলেছেন, আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলছি, বাংলাদেশের কোনো লোক যদি বলতে পারে… আমি বা চেয়ারম্যান কারও কাছ থেকে টাকা নিয়েছি। এমনটি প্রমাণ করতে পারলে আমি পদত্যাগ করব। শত কোটি টাকা পেলে তো বিদেশ চলে যেতাম।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর বনানীতে জাপা চেয়ারম্যানের কার্যালয় থেকে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় তিনি এ কথা বলেন।

টাকা নিয়ে নির্বাচনে আসার অভিযোগ অস্বীকার করে চুন্নু বলেন, এগুলো হলো গসিপিং। অনেকেই মনে করছে আওয়ামী লীগের সঙ্গে যেহেতু আমাদের কথাবার্তা হয়েছে, ২৬টি সিট দিয়েছে…। তাদের ধারণা আমাদের অনেক টাকা দিয়েছে, শত শত কোটি টাকা দিয়েছে… অথচ প্রার্থীদের কেন আমরা টাকা দিলাম না! এটা তাদের মনের আসল ব্যথা। ইলেকশন ঠিকমতো হয়নি এবং তারা পাস করেনি এটা আসল ব্যথা না। দুই একজন ছাড়া পরাজিত প্রার্থীদের আসল ব্যথা হলো— আমরা শত কোটি টাকা পেয়েছি, অথচ তাদের কেন দেইনি!

শত কোটি টাকা কে দিতে যাবে, এ প্রশ্ন রেখে জাপা মহাসচিব বলেন, সরকার আমাকে টাকা দেবে কেন? সরকার যদি আমাকে টাকা দেয় তাহলে এটা কী জানার বাকি থাকবে! শত-শত কোটি টাকা হজম করার মতো মানুষ তো আমি না। বাংলাদেশে আমার নিজস্ব একটা বাড়িও নেই। এত টাকা পেলে তো বিদেশ চলে যেতাম।

Scroll to Top