১৮ এপ্রিল, ২০২৪
৫ বৈশাখ, ১৪৩১

ছক্কার রেকর্ড গড়লেন রিজওয়ান

মিরর স্পোর্টস : একের পর এক হারের মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান। বিশ্বকাপ ব্যর্থতা ভোলার মিশনে তারা প্রথমে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্টে ধবলধোলাই হয়েছিল। এবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টানা দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে হেরেছে শাহিন আফ্রিদির দল। আজ (রবিবার) হ্যামিল্টনে হারের ম্যাচে অবশ্য মোহাম্মদ রিজওয়ানও রান পাননি। ৫ বলে মাত্র ৭ রানে বিদায় নেন তিনি। তবে এদিন হাঁকানো একমাত্র ছয় দিয়ে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান পাকিস্তানের হয়ে রেকর্ড গড়েছেন। দলটির হয়ে টি-টোয়েন্টিতে এখন সর্বোচ্চ ৭৭টি ছয় রিজওয়ানের।

এই কীর্তি গড়তে তিনি ৮৭টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। তবে টানা দুই ম্যাচেই বড় ইনিংস খেলতে পারেননি রিজওয়ান। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে তিনি করেছিলেন ২৫ রান। তবে ছয়ের রেকর্ডে তিনি আজ পেছনে ফেলেছেন পাকিস্তানের সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান ও বর্তমানে প্রধান কোচ এবং টিম ডিরেক্টরের ভূমিকায় থাকা মোহাম্মদ হাফিজকে। সাবেক ডানহাতি ব্যাটার ১১৯ ম্যাচে মেরেছেন ৭৬টি ছয়

পাকিস্তানের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি ছয় মারার তালিকায় তিনে আছেন শহীদ আফ্রিদি। তিনি ৯৮ ম্যাচ হাঁকিয়েছেন ৭৩ ছক্কা। শোয়েব মালিক ১২৩ ম্যাচে ৬৯ ছক্কা নিয়ে আছেন চারে। পাঁচে অবস্থান করা বাবর আজমের ১০৬ ম্যাচে রয়েছে ৫৭ ছয়।

তবে ছয়ের রেকর্ডে বেশ পেছনেই আছেন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। দলটির সর্বোচ্চ ছয় হাঁকানো রিজওয়ান সবমিলিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ৩২ নম্বরে আছেন। একইসঙ্গে বর্তমানে খেলা ক্রিকেটারদের মধ্যে এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান আছেন একুশে। সংক্ষিপ্ত সংস্করণে সবমিলিয়ে সবচেয়ে বেশি ছক্কার রেকর্ড ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মার। ১৫০ টি-টোয়েন্টিতে তিনি এখন পর্যন্ত ১৮২টি ছয় মেরেছেন।

ছয় মারার দিক থেকে দুইয়ে অবস্থান নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপটিলের। ১২২ ম্যাচে তিনি মেরেছেন ১৭৩টি ছয়। এছাড়া অ্যারন ফিঞ্চ ১২২ ম্যাচে ১২৫, ক্রিস গেইল ৭৯ ম্যাচে ১২৪ এবং সূর্যকুমার যাদব ৬০ ম্যাচে ১২৩টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন।

Scroll to Top