১৮ এপ্রিল, ২০২৪
৫ বৈশাখ, ১৪৩১

ইসরায়েলে ৬২টি রকেট ছুড়ল হিজবুল্লাহ

উত্তর ইসরায়েলে শুক্রবার বিকাল থেকে ৬২টি রকেট ছুড়েছে লেবাননের সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। হামাসের উপপ্রধান সালেহ আল-অরোরি হত্যার প্রতিশোধ নিতে ইসরায়েলের একটি সামরিক ঘাঁটিতে তারা ব্যাপক হামলা চালিয়েছে।

শনিবার (৬ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে হিজবুল্লাহ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী নিশ্চিত করেছে তাদের দখলকৃত উত্তরাঞ্চলে ব্যাপক হামলা চালিয়েছে হিজবুল্লাহ। তবে তাদের দাবি, যেখান থেকে রকেটগুলো ছোড়া হয়েছে সেই স্থান লক্ষ্য করে তারাও পাল্টা হামলা চালিয়েছে।

তবে এখনও পর্যন্ত এই হামলা ক্ষয়ক্ষতি ও পাল্টা হামলার ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি ইসরায়েল।

অক্টোবরে ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে যুদ্ধ শুরুর পর এতে অংশ নেয় হিজবুল্লাহও। তবে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে পূর্ণমাত্রার যুদ্ধে জড়ানোর বদলে প্রতিদিনই বিক্ষিপ্ত হামলা চালিয়ে আসছে তারা। হিজবুল্লাহ ও ইসরায়েলের এ হামলা-পাল্টা হামলা সীমান্ত এলাকাগুলোতে সীমাবদ্ধ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ইসরায়েলি বিমান হামলায় প্রাণ হারান হামাসের পলিটব্যুরোর উপপ্রধান সালেহ আল-অরোরি। প্রথমে বলা হয়েছিল, তিনি ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন। পরবর্তীতে জানা যায় অরোরি যে বাড়িতে ছিলেন সেখানে বিমান থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে সালেহ ছাড়াও  হামাসের আরও দুই কমান্ডারসহ মোট সাতজন প্রাণ হারান।

এর পরই হিজবুল্লাহ হুমকি দেয় তারা এই হত্যাকাণ্ডের জন্য ইসরায়েলকে শাস্তি দেবে। সেই কথা অনুযায়ী আজ শনিবার সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে ৬০টিরও বেশি রকেট ছুড়েছে তারা। তবে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এসব রকেট রুখে দিতে সমর্থ হয়েছে কি না সে বিষয়টি নিশ্চিত নয়। সূত্র : আলজাজিরা

Scroll to Top