২৩ জুলাই, ২০২৪
৮ শ্রাবণ, ১৪৩১
Mirror Times BD

ভারতের বাড়তি ‘সুবিধা’ নেওয়ার বিষয়ে যা বললেন নাসের হুসেইন

মিরর স্পোর্টস : বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে একপেশে লড়াইয়ে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে চলে গেছে ভারত। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ১৭১ রান করে রোহিত শর্মার দল। জবাবে ব্যাট করতে নেমে কুলদীপ যাদব আর অক্ষর প্যাটেলের ঘূর্ণিতে মাত্র ১০৩ রানে অলআউট হয়ে গেছে ইংলিশরা।

আগামীকাল শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে ভারত। ১৩ বছরের শিরোপাখরা কাটাতে মুখিয়ে আছে রোহিতরা। অন্যদিকে প্রথমবারের মতো আইসিসির কোনো ইভেন্টে ফাইনালে উঠেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তারাও প্রস্তুত ভারতকে রুখে দিয়ে প্রথম কোনো আইসিসি শিরোপা ঘরে তুলতে।

ভারতের ফাইনালের ওঠার পর বলাবলি করা হচ্ছে, তারা পিচ ও টুর্নামেন্টের ফিকশ্চার থেকে বাড়তি সুবিধা নেয়। প্রায় সময়ই ভারতের বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ আনা হয়। গেল কয়েকদিন আগে আইসিসির উপর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রভাব নিয়ে অভিযোগ করেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ক্রিস গেইলও।

তবে ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক নাসের হুসেইনের মুখে শোনা যাচ্ছে ভিন্ন কথা। ভারতের এমন সুবিধা নেওয়ার যে দাবি উঠছে, সেটি তিনি মানতে নারাজ। বরং ভারত যোগ্যতা ও সামর্থ্যের জোরেই ফাইনালে যেতে পেরেছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

নাসের ব্রিটিশ গণমাধ্যম ‘ডেইলি মেইল’-এ একটি কলামে লিখেছেন, ‘দাবি অনেকটা এমন যে, বৃহস্পতিবারের সবকিছুই ভারতকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। পিচ, ভেন্যু সবকিছুই তাদের পক্ষে ছিল বলে দাবি তোলা হচ্ছে। তবে আপনি যদি আরও বিশদভাবে বিষয়টি দেখেন, তাহলে দেখবেন তারা সেন্ট লুসিয়ার ভালো পিচে ৫০ ওভারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে পরাজিত করেছে। তারপর স্লো ও লো পিচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে স্বাচ্ছন্দ্যে জিতে ফাইনালে এসেছে। তারা যেভাবে খেলেছে সেটি তাদের কাছে ন্যায্য খেলা। এটা ঠিক মনে হচ্ছে যে, টুর্নামেন্টে অপরাজিত দুই দল ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা শনিবার বার্বাডোসে মুখোমুখি হবে।’
২০২২ সালের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে হেরে বিদায় নিতে হয়েছিল ভারতকে। সেটি মনে করিয়ে দিয়ে নাসের বলেন, ‘২০২২ সালের সেমিফাইনালে অ্যাডিলেড ওভালে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে যাওয়া ১৬৮ রানের স্কোরের চেয়ে এবার ভারতের স্কোর সামান্য বেশি ছিল। কিন্তু গায়ানার কন্ডিশনের পার্থক্য ছিল চক এবং পনির। পেসারদের কম্বিনেশনে নিচু হওয়া বল আর স্পিনারদের বাউন্সহীন বলে ৭ উইকেটে ১৭১ রানে একটি ভালো স্কোর। রোহিত শর্মা তার প্রিয় শট, নিজের ক্লাস দেখিয়েছে। পুল শটে সমীকরণের বাইরে গিয়ে আরও একটি অর্ধশতক করেছে।’

⠀শেয়ার করুন

loader-image
Dinājpur, BD
জুলা ২৩, ২০২৪
temperature icon 30°C
overcast clouds
Humidity 75 %
Pressure 1000 mb
Wind 15 mph
Wind Gust Wind Gust: 19 mph
Clouds Clouds: 100%
Visibility Visibility: 0 km
Sunrise Sunrise: 05:27
Sunset Sunset: 18:56

⠀আরও দেখুন

Scroll to Top