২৩ মে, ২০২৪
৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১
Mirror Times BD

বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজ: সাকিব-মুস্তাফিজকে নিয়ে ‘বিশ্বকাপ প্রস্তুতি’

মিরর স্পোর্টস : চট্টগ্রামে সিরিজের প্রথম তিন ম্যাচে ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং- সব বিভাগেই জিম্বাবুয়েকে স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। বাছাইপর্বের বাধা পেরোতে না পারায় আসছে জুনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা হয়নি জিম্বাবুয়ের। তবে বাংলাদেশের জন্য সিরিজ জয়ের সঙ্গে বিশ্বকাপ প্রস্তুতিও। দুই ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ নিশ্চিত করায় পরীক্ষা-নিরীক্ষার সুযোগ নাজমুল হোসেন শান্তদের। আজ শুক্রবার মাঠে গড়াবে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের চতুর্থ টি-টোয়েন্টি। ‘হোম অব ক্রিকেট’ খ্যাত মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হবে ম্যাচটি। চলতি সিরিজে এই প্রথমবারের মতো খেলবেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও সম্প্রতি আইপিএল মাতিয়ে আসা মুস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে সিরিজের প্রথম তিন ম্যাচের জন্য ঘোষিত ১৫ দলের স্কোয়াডে ছিলেন শরিফুল ইসলাম, পারভেজ হোসেন ইমন ও আফিফ হোসেন। সাগরিকায় প্রথম দুই ম্যাচে শরিফুল খেললেও তৃতীয় ম্যাচে তাকে বিশ্রাম দিয়েছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে ডিপিএলে ধারাবাহিক পারফর্ম করা ওপেনার ইমন ও আফিফ একাদশে কোনো সুযোগই পাননি। সিরিজের শেষ দুই ম্যাচের স্কোয়াড থেকেই বাদ পড়েছেন এই তিনজন। তাদের জায়গায় দলে এসেছেন আইপিএল থেকে ফেরা মুস্তাফিজ, ১০ মাস পর টি-টোয়েন্টিতে ফেরা সাকিব ও ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা সৌম্য সরকার। সব ঠিকঠাক থাকলে আজকের একাদশেও দেখা যেতে পারে এই ত্রয়ীকে!

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথম দুই ম্যাচেই টস জিতে আগে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে তাসকিন আহমেদের আগুন ঝরানো বোলিংয়ে সিকান্দার রাজাদের মাত্র ১২৪ রানে গুটিয়ে দেওয়ায় পর অভিষিক্ত তানজিদ হাসান তামিমের অপরাজিত ফিফটিতে চড়ে আসে ৮ উইকেটের সহজ জয়। দ্বিতীয় ম্যাচে সফরকারীরা কিছুটা লড়াইয়ের আভাস দিলেও শেষ পর্যন্ত তাওহীদের হৃদয়ছোঁয়া ব্যাটিংয়ে ৬ উইকেটের জয় তুলে নেয় টাইগাররা। আর সিরিজ জয়ের ম্যাচে টস হেরে আগে ব্যাট করে তাওহীদ হৃদয়ের টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক ফিফটি ও জাকের আলির দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ১৬৫ রান তোলার পর সাইফউদ্দিন-তাসকিনদের বুদ্ধিদীপ্ত বোলিংয়ে ৯ রানে জয় তুলে নেয়।

দুই দলের মাঠের লড়াইয়ে শক্তি, সামর্থ্য, দক্ষতা ও অভিজ্ঞতায় এগিয়ে স্বাগতিকরাই। দুই দলের মুখোমুখি সাত টি-টোয়েন্টি সিরিজের তিনটিতে জিতেছে বাংলাদেশ। বিপরীতে মাত্র একটি জিততে পেরেছে জিম্বাবুয়ে। তবে সর্বশেষ সিরিজে পূর্ব আফ্রিকার দেশটির কাছে হার মেনেছে টাইগাররা। এ নিয়ে অস্বস্তি থাকলেও পরিসংখ্যান কিন্তু কথা বলছে বাংলাদেশের পক্ষেই। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৩ বারের দেখায় টাইগাররা জিতেছে ১৬টি ম্যাচ। বিপরীতে হার ৭ ম্যাচে। তবে ২০০১ সালের পর বাংলাদেশের মাটিতে সাদা বলের কোনো সিরিজ জেতেনি জিম্বাবুয়ে। 

জিম্বাবুয়েকে সিরিজে হারালেও বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জায়গাটিতে ঘাটতি থেকেই গেছে বাংলাদেশের। বিশেষ করে প্রথম দুটো ম্যাচে টস জেতার পরও শান্তদের আগে বোলিং করার সিদ্ধান্তকে রক্ষণাত্মক কৌশল মনে করছেন অনেকেই। তবে টাইগার স্পিডস্টার তাসকিন আহমেদ মনে করেন এই সিরিজ জয় বিশ্বকাপে উজ্জীবিত রাখবে টাইগারদের। একই সঙ্গে এই জয়কে ‘ফেক কনফিডেন্স’ মানতে নারাজ তিনি। গতকাল বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে তাসকিন বলেন, ‘ফেক কনফিডেন্স না। ভালো করলে আত্মবিশ্বাস বাড়ে।’ বিশ্বকাপে ভালো করার জন্য কন্ডিশনে মানিয়ে নেওয়ার ওপর জোর দিচ্ছেন তাসকিন, ‘আমরা এখনও জানি না যুক্তরাষ্ট্রের কন্ডিশন কেমন হবে। হয়তো ড্রপ ইন উইকেটে খেলা হবে। আমাদের বেশিরভাগ ক্রিকেটারের ওই কন্ডিশনে খেলার অভিজ্ঞতা নেই। সেখানে গিয়ে মানিয়ে নিতে হবে নতুনভাবে। কন্ডিশন তো বদলাতে পারব না। আমরা যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তিনটি ম্যাচ খেলব এটা খুব ভালো দিক। দ্রুত মানিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে সহায়ক হতে পারে।’

⠀শেয়ার করুন

⠀আরও দেখুন

Scroll to Top